বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ১১:১৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
ডুমুরিয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনকারীকে জরিমানা রূপসায় স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে পলাশ সভাপতি, মনিরুজ্জামান সম্পাদক, হায়দার কোষাধ্যক্ষ ডুমুরিয়ায় যুব উন্নয়ন দপ্তর আয়োজনে প্রশিক্ষণ কর্মশালা ও ঋণের চেক বিতরণ ডুমুরিয়ায় গাঁজাসহ মাদক ব্যাবসায়ী ও পরোয়ানাভূক্ত আসামী গ্রেপ্তার -৮ নগরীতে নারী নির্যাতন এবং বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ প্লাটফর্ম সদস্যদের দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ খুলনার দিঘলিয়ায় শিশু তামিম মোল্লা হত্যার ঘটনায় ২জন আটকঃ৭দিনের রিমান্ডের আবেদন পাইকগাছায় গেটের পাট ভেঙ্গে লবণ পানিতে এলাকা প্লাবিত : বোরো ধানের ব্যাপক ক্ষতি কর্মতৎপরতা ও দক্ষতার জন্য জেলার শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যানের পুরস্কার পেলেন পাইকগাছার কওসার ও রিপন বর্তমান সরকার জাতি,ধর্ম,বর্ণ নির্বিশেষে উন্নয়নের ধারা অব্যহত রেখেছে- রূপসায় এ্যাড. সুজিত ডিজিটাল ভূমি ব্যবস্থাপনায় বিশেষ অবদানের জন্য পুরস্কিত হলেন পাইকগাছার ইউএনও

খুলনায় গুলিবিদ্ধের ঘটনায় নিহত বেড়ে ৪, হামলা-অগ্নিসংযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম শুক্রবার, ১৭ জুলাই, ২০২০
  • ১৫৫ জন সংবাদটি পড়েছেন
 খুলনা মহানগরীর খানজাহান আলী থানাধীন মশিয়ালী এলাকায় গুলি ও গণপিটুনিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে চারজন হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) রাত সাড়ে ৮টার দিকে ঘটনার সময় মারা যান আটরা গিলাতলার মশিয়ালী এলাকার মৃত মো. বারিক শেখের ছেলে মো. নজরুল ইসলাম (৬০) ও একই এলাকার মো. ইউনুচ আলীর ছেলে গোলাম রসুল (৩০)। মহানগরীর খান জাহান আলী থানার মশিয়ালীর ইস্টার্ন গেটে গুলির এ ঘটনা ঘটে। এ সময়ে গুলিবিদ্ধ হন মো. সাইফুল ইসলাম, আফসার শেখ, শামীম, রবি, খলিলুর রহমান ও মশিয়ার রহমানসহ আরও কয়েকজন। শহীদুল ইসলামের ছেলে গুলিবিদ্ধ সাইফুল ইসলাম (২২) বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) দিনগত রাত ১২ টা ২০ মিনিটে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থার মারা যান। এছাড়া রাত ২টার দিকে গুলির ঘটনাকে কেন্দ্র করে জিহাদ শেখ (৩০) নামের এক যুবককে গণপিটুনি দিয়ে মেরে ফেলে উত্তেজিত এলাকাবাসী।
স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার খানজাহান আলী থানা পুলিশকে অস্ত্রসহ মুজিবর নামের এক ব্যক্তিকে ধরিয়ে দেন জাহান আলী থানা আওয়ামী লীগের নেতা জাকারিয়া ও তার ভাই খুলনা মহানগর ছাত্রলীগের নেতা জাফরিন। মুজিবরকে গ্রেফতারের বিষয়ে এলাকাবাসী জাকারিয়াকে জিজ্ঞাসা করতে যায়। ওই বাড়ির সামনে যাওয়ার পর কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে জাকারিয়া ও জাফরিন স্থানীয়দের ওপর গুলিবর্ষণ করেন। এ থেকে সংঘর্ষের ঘটনার সূত্রপাত হয়।
এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন গুলিবিদ্ধ হলেও গুরুতর আহত অবস্থায় নজরুল ও রসুলকে ফুলতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তবে অনেকেই বলছেন, মশিয়ালী আলিয়া মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটি নির্বাচনে খানজাহান আলী থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-প্রচার সম্পাদক মো. জাকারিয়া সভাপতি পদে পরাজিত হন। এ ঘটনার জের ধরে স্থানীয়দের সঙ্গে তার বিরোধের সূত্রপাত হয়। ঘটনাস্থলে তিনি ও তার ছোট ভাই জাফরিন এলোপাতাড়ি গুলি ছোড়েন। একপর্যায়ে স্থানীয় মসজিদের মাইকে এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়ে দেওয়ার ঘটনাটি ঘোষণা দেয়। এঘটনার পর স্থানীয়রা দফায়-দফায় বিক্ষোভ করে। পরে স্থানীয়রা আওয়ামী লীগ নেতা জাকারিয়া, জাফরিন, কবির ও মিল্টন এ চার ভাইয়ের বাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ ১০টি বাড়িঘর ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। এসময় ফায়ার সার্ভিসের গাড়িও ওই এলাকায় প্রবেশ করতে দেয়নি ক্ষীপ্ত এলাকাবাসী। উত্তেজিত হয়ে রাত ২টার দিকে জাকারিয়ার লোক মোকসেদ আলীর ছেলে জিহাদ শেখকে গণপিটুনি দিয়ে মেরে ফেলেন। এদিকে, নগর আ’লীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদক মুন্সী মাহবুব আলম সোহাগ বলেছেন, হত্যাকান্ডের ঘটনায় জাকারিয়াকে থানা আ’লীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। অপরদিকে, শুক্রবার সকালে যশোরের অভয়নগর এলাকা থেকে জাহাঙ্গীর নামের একজনকে আটক করেছে পুলিশ।
খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের এডিসি (মিডিয়া) কানাই লাল সরকার জানান, মশিয়ালীতে গুলির ঘটনায় মোট চার জন নিহত হয়েছেন। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতার করতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এছাড়া এ ঘটনায় এখনও কোনো মামলা হয়নি। খুলনা জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের বিশেষ শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুর রশিদ জানান, এলাকার মৃত হাসান প্রফেসরের ছেলেদের সঙ্গে মসজিদ কমিটি নিয়ে গ্রামবাসীর দীর্ঘদিনের বিরোধ ছিল। ওই বিরোধে এসব ঘটনা ঘটে। খানজাহান আলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম বলেন, আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন : ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরো সংবাদ

আমাদের রূপসী ইউটিউব চ্যানেল

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: রবিউল ইসলাম তোতা

প্রধান কার্য্যালয় : রামনগর পূর্ব রূপসা, রূপসা, খুলনা

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি রাইট বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Hwowlljksf788wf-Iu