শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৫:০৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
মুন্সীগঞ্জের সাংবাদিককে নারায়ণগঞ্জে কুপিয়ে জখম দিঘলিয়ায় বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে একজন কে ভ্রাম্যমাণ আদালতে সাজা প্রদান খুলনার দিঘলিয়ায় পাট গুদামের দেয়াল ধ্বসে থানায় ২ ডায়েরি  নোয়াখালীতে ইসলামী বক্তা আবু ত্বোহার সন্ধানে ছাত্র ও যুব সমাজের মানববন্ধন ভাসানচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মাহে আলমকে বরিশাল রেঞ্জে বদলি গাইবান্ধায় নদ-নদীতে পানি বৃদ্ধিতে নৌকা কারিগরদের ব্যস্ততা বেড়েছে বগুড়ায় ডিবি পুলিশের অভিযানে ৪১টি চোরাই মোবাইলসহ আটক-৪ গাজীপুরে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ হতদরিদ্র ৬৪ পরিবারে স্বাস্থ্যসেবা কার্ড বিতরণ সিলেটের শ্রীমঙ্গলে ছায়াবৃক্ষ সিনেমার শুটিং চলছে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের উজানচরে ক্যান্সারে আক্রান্ত স্ত্রীকে বাঁচাতে স্বামীর আকুতি

খুলনায় তিন খুনের ঘটনায় মামলা: গ্রেফতার ২

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম শনিবার, ১৮ জুলাই, ২০২০
  • ১৯৮ জন সংবাদটি পড়েছেন

খুলনা নগরীর ইস্টার্ণগেট এলাকায় ত্রিপল মার্ডারের ঘটনায় অন্যতম সন্দেহভাজন জাফরীন হাসানসহ ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার (১৮ জুলাই) রাতে নিহত সাইফুল ইসলামের পিতা শহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে ২২ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ১৫/১৬ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন।

কেএমপি’র মুখপাত্র এডিসি কানাইলাল সরকার বলেছেন, নিহত মোঃ সাইফুল ইসলামের পিতা শহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে খানজাহান আলী থানায় মামলা দায়ের (যার নং-১২, ১৮-৭-২০২০ইং) করেছেন। মামলায় ২২জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ১৫-১৬ জনকে আসামী করা হয়েছে। আটককৃতদের নাম এজাহারে থাকায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হচ্ছে। অন্য আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। গুলিবর্ষণে ঘটনায় ব্যবহৃত অবৈধ অস্ত্র এখন উদ্ধার করা যায়নি। তবে অনুসন্ধান চলছে।

এদিকে, আজ শনিবার বিকেল ৫টার দিকে যশোর বাঘারপাড়া উপজেলার দাতপুর গ্রাম থেকে শেখ জাফরীন হাসানকে আটক করে নগর গোয়েন্দা পুলিশ। জাফরিনকে আটকের খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে এলাকার বিপুল সংখ্যক মানুষ রাস্তায় বেরিয়ে জাফরীন, জাকারিয়া ও মিল্টনের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে মিছিল করে।

এর আগে, শুক্রবার (১৭ জুলাই) যশোরের অভয়নগরের নওয়াপাড়া থেকে আটক হয় জাফরিন শেখের সহযোগী জাহাঙ্গীরকে। পরবর্তীতে শেখ জাকারিয়ার শ্বশুর কোরবান আলী ও শ্যালক আরমানকে আটক করে পুলিশ।

খানজাহান আলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ শফিকুল ইসলাম বলেন, আটককৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। ব্যবহৃত আগ্নেয়াস্ত্র ও পলাতকদের গ্রেফতারে এখনো অভিযান চলমান। যেহেতু ঘটনাটি জঠিল ও ট্রিপল মার্ডার একজন গণপিটুনিতে মোট চারজন নিহত হয়েছেন, সে কারণে মামলা একটু বিলম্ব হল।

উল্লেখ্য, উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) রাতে খুলনার খানজাহান আলী থানার মশিয়ালী এলাকায় জাকারিয়া বাহিনীর গুলিতে মারা যান আটরা গিলাতলার মশিয়ালী এলাকার মৃত মো. বারিক শেখের ছেলে মো. নজরুল ইসলাম (৬০) ও একই এলাকার মো. ইউনুচ আলীর ছেলে গোলাম রসুল (৩০)।

এসময় গুলিবিদ্ধ হন মো. সাইফুল ইসলাম, আফসার শেখ, শামীম, রবি, খলিলুর রহমান ও মশিয়ার রহমানসহ আরও কয়েকজন। এর মধ্যে আহত সাইফুল ইসলাম শুক্রবার (১৭ জুলাই) সকালে মারা যান।

অপরদিকে, বিক্ষুব্ধ গ্রামবাসী গণপিটুনী দিয়ে জাকারিয়া বাহিনীর সদস্য জিহাদ শেখকে হত্যা করে। এ ঘটনায় চার জন নিহতের ঘটনা ঘটে।

সংবাদটি শেয়ার করুন : ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরো সংবাদ

আমাদের রূপসী ইউটিউব চ্যানেল

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: রবিউল ইসলাম তোতা

প্রধান কার্য্যালয় : রামনগর পূর্ব রূপসা, রূপসা, খুলনা

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি রাইট বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Hwowlljksf788wf-Iu