রবিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২১, ১০:৫৬ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
রূপসায় যুবলীগের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ ভূমিহীন ও গৃহহীনদের একমাত্র আশ্রয়স্থল অগ্নিকন্যা শেখ হাসিনা-রূপসায় এমপি সালাম মুর্শেদী ডুমুরিয়া থানা পুলিশের অভিযানে পরোয়ানাভূক্ত ৪ আসামী গ্রেপ্তার ডুমুরিয়ায় প্রয়াত অভিজিৎ চন্দ্র চন্দ’র স্মরণসভা অনুষ্ঠিত মুজিববর্ষে পাইকগাছায় ২২০ গৃহহীনদের মাঝে ঘর ও দলিল হস্তান্তর ডুমুরিয়ায় মাদক চোরাকারবারি সবুজ সরদার গাঁজাসহ আটক মুজিববর্ষে ফকিরহাটে ভূমি ও গৃহহীন ৩০ পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান মুজিববর্ষে ডুমুরিয়ায় আশ্রায়ণ প্রকল্পের ঘর পেয়ে আনন্দ আবেগে কেঁদে ফেললেন রিনা বেগম ফকিরহাটে প্রতিপক্ষের হামলায় ২ জন জখম রয়েল বেঙ্গল টাইগার দিয়েই শুরু হলো খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা

রূপসায় লেবু চাষে আকরাম হোসেন এর সাফল্য

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট টাইম সোমবার, ২৭ জুলাই, ২০২০
  • ৪৭০ জন সংবাদটি পড়েছেন

মোঃ আবদুর রহমান

——————-
রূপসা উপজেলার দেবীপুর গ্রামের বাসিন্দা মোঃ আকরাম হোসেন (৬০)। তিনি বসতবাড়ির পাশের পতিত জমিতে সুগন্ধি লেবুর চাষ করে দারুণ সাফল্য পেয়েছেন। এমন সাফল্য দেখে এলাকার অনেক মানুষ লেবু চাষে উৎসাহিত হয়েছেন। এই প্রথম আকরাম হোসেন লেবু চাষ করে সফল হয়েছেন। এক বছর আগে সৃজিত বাগানে এখন থোকায় থোকায় ঝুলছে সবুজ রঙের লেবু ।
সরোজমিনে গেলে আকরাম হোসেন এর সাথে এ প্রতিবেদকের কথা হয়। জানা যায়, গত বছর তিনি আষাঢ় মাসে ৫০ শতক জমিতে উন্নত পদ্ধতিতে একশ’ সুগন্ধি লেবু (পাতি লেবু) এর চারা রোপণ করেন। রোপণের পর স্থানীয় উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোঃ জাহাঙ্গীর মোল্লার পরামর্শে তিনি লেবু চারাগুলোর নিবিড় পরিচর্যা করেন । এতে চারা গাছগুলো তরতর করে বৃদ্ধি পেতে থাকে । এই ৫০ শতক জমিতে লেবু চাষে চারা ক্রয়, গর্ত তৈরি, সার ও অন্যান্য খরচ মিলে তার প্রায় ৪০ হাজার টাকা খরচ হয়। চারা রোপণের এক বছরের পর থেকেই আকরাম হোসেনের স্বপ্নের লেবু গাছে ফল ধরা শুরু হয় । বাগানে গিয়ে দেখা যায়, ছোট ছোট লেবু গাছে ঝুলছে থোকায় থোকায় লেবু। আকরাম হোসেন জানান, প্রতিটি গাছে ৪০-৫০ টি করে ফল ধরেছে । ইতিমধ্যে তিনি ১০ হাজার টাকার লেবু বিক্রি করেছেন এবং আরো প্রায় ৩০ হাজার টাকার লেবু বিক্রি করতে পরবেন বলে আশা প্রকাশ করেন। এ বাগান থেকে প্রতি বছর প্রায় ৫০-৬০ হাজার টাকার লেবু বিক্রি করতে পারবেন বলে আকরাম হোসেন জানান।
রূপসা উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ ফরিদুজ্জামান বলেন, লেবুসহ মাল্টা, আম ও অন্যান্য ফল চাষে চাষিদের উদ্বুদ্ধ করতে পরামর্শ, প্রশিক্ষণ ও সহযেগিতা প্রদান করা হচ্ছে। রাজস্ব ও জিকেবিএসপি প্রকল্পের আওতায় ইতোমধ্যে এই উপজেলার ১৫ টি ব্লকে কয়েকটি ফল বাগানের প্রদর্শনী স্থাপন করা হয়েছে । আর প্রতিটি ব্লকের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণ চাষিদের পাশে থেকে লেবুসহ বিভিন্ন ফল ও ফসল চাষে সার্বক্ষণিক পরামর্শ দিয়ে চলেছেন।
লেবু চাষে খরচ কম, লাভের পরিমাণ অনেক বেশি । চারা লাগানোর এক বছর পর থেকেই ফলন পাওয়া যায়। সঠিক পরিচর্যা করলে একবার চারা রোপণের পর একাধারে অন্তত দশ বছর পর্যন্ত ফলন পাওয়া যায়। সারা বছরই লেবুর চাহিদা রয়েছে। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে ভিটামিন ‘সি’ সমৃদ্ধ এই লেবু অনেক উপকারী বলে বর্তমান বাজারে এর চাহিদা আরো বৃদ্ধি পেয়েছে । পাইকাররা বাগানে এসেই কিনছেন লেবু। তাই বাজারজাত করার বাড়তি ঝামেলা নেই। লেবুর ভাল দাম পেয়ে দেবীপুর গ্রামের আকরাম হোসেন অনেক খুশি। প্রতিনিয়তই বিভিন্ন এলাকা থেকে আগ্রহী চাষিরা তার এই বাগান দেখে লেবু চাষে অনুপ্রাণিত হচ্ছেন ।

লেখকঃ উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা উপজেলা কৃষি অফিস রূপসা, খুলনা।

সংবাদটি শেয়ার করুন : ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরো সংবাদ

আমাদের রূপসী ইউটিউব চ্যানেল

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: রবিউল ইসলাম তোতা

প্রধান কার্য্যালয় : রামনগর পূর্ব রূপসা, রূপসা, খুলনা

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি রাইট বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Hwowlljksf788wf-Iu