রবিবার, ০৭ মার্চ ২০২১, ০৫:৪১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
ডুমু‌রিয়ার মাগুরখালী‌তে নারীর জন্য বরাদ্ধ শীর্ষক সভা অনু‌ষ্ঠিত খুলনায় পিকআপ গাড়ীর চাপায় যুবক নিহত ডুমুরিয়ায় জয়গুন নেছা চ্যারিটেবল ফাউন্ডেশনের উদ্বোধন রূপসায় ডিবি পুলিশের অভিযানে গাজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক ডুমুরিয়ায় আন্তর্জাতিক নারী দিবসকে সামনে রেখে মানব বন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত ডুমুরিয়ায় মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে দু’টি প্যানেলে ৫৪ টি মনোনয়ন পত্র জমা পাইকগাছায় সন্ত্রাসী হালিম শিকারীর বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর থানায় গণ স্বাক্ষরিত অভিযোগ কয়রায় নারী নির্যাতন এবং বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ প্লাটফর্ম সদস্য সমন্বয়ে এ্যাডভোকেসি সভা বাগেরহাট জেলায় পুষ্টি সংবেদনশীল কার্যক্রম অন্তর্ভূক্তিকরণ নিয়ে দিনব্যাপী কর্মশালা অনুষ্ঠিত ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ রূপসা উপজেলা শাখার নবনির্বাচিত কমিটির পরিচিতি ও শপথ অনুষ্ঠান

জানার আছে অনেক কিছু…….

আলোর মিছিল
  • আপডেট টাইম মঙ্গলবার, ১৮ আগস্ট, ২০২০
  • ১৩৮ জন সংবাদটি পড়েছেন
যে পশু তাঁর চোখ নিয়ে গেল সেই ভাল্লুককে নিজের চিড়িয়াখানায় যত্ন করেন পরম মমতায়।

ব্যক্তিজীবনে তিনি পেশাদার শিকারী ছিলেন। কাঁধে বন্দুক নিয়ে ৫০ সিসি’র মোটর সাইকেল ছুটিয়ে তিনি চলে যেতেন জঙ্গলে শিকারে। তখনও সব ধরণের শিকার আইনে অবৈধ হয় নি। শিকারের ব্যাপারে সিতেশ বাবু অন্যদেরও উদ্বুদ্ধ করতেন। দুর্ধ্বর্ষ শিকারি বেশ হিসাবে নাম ডাকও ছিল।

১৯৯১ সালে কমলগঞ্জ উপজেলার পত্রখোলা চা-বাগানে বন্য শুকরের উপদ্রব বেড়ে যায়। চা-বাগান কর্তৃপক্ষের আমন্ত্রণে তিনি ১৪ জানুয়ারি তীব্র শীত উপেক্ষা করে সারারাত ধরে দোনলা বন্দুক হাতে তিনি শিকার চালিয়ে যান। সে রাতেই ঘন জঙ্গলের সরু রাস্তায় প্রায় আট ফুট লম্বা একটা ভাল্লুকের সামনে গিয়ে পড়লেন। ভাল্লুকটি তাঁকে আক্রমণ করতে আসতেই তিনি বন্দুক তুললেন, কিন্তু তার আগেই ভালুকটির হিংস্র থাবায় তাঁর মুখের ডান দিক ছিন্নভিন্ন হয়ে গেলো।

সিতেশ বাবু হারালেন ডান চোখসহ গালের অনেকটা। শেষ মুহূর্তে ভাল্লুকটির মাথা লক্ষ করে গুলি করতে পারায় তাঁর শেষ রক্ষা হয়েছিল। টানা দুই মাস চিকিৎসা আর ২৯ ব্যাগ রক্তের পর সুস্থ হন তিনি।

সেই থেকেই শিকার ছেড়ে দেন তিনি। সিতেশ বাবু হয়ে ওঠেন পশুপ্রেমী। নিজে চিড়িয়াখানা দিলেন। সেখানে পশুদের পরিযর্যা করেন। এরপর আবার জঙ্গলে ছেড়ে দেন। পশুপাখি বাঁচানোর যে কোন উদ্যোগে তাঁকে পাওয়া যায় সবার আগে।

নিজের চিড়িয়াখানার প্রাণীদের রেখে তিনি শ্রীমঙ্গলের বাইরেও যান কম। ব্রিটিশ বন্ধুর আমন্ত্রণে লন্ডন গেলেও এক সপ্তাহের বেশি থাকেন না।

সব জায়গাতেই আমাদের আসলে অনেকজন সিতেশ বাবু দরকার।

সংবাদটি শেয়ার করুন : ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরো সংবাদ

আমাদের রূপসী ইউটিউব চ্যানেল

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: রবিউল ইসলাম তোতা

প্রধান কার্য্যালয় : রামনগর পূর্ব রূপসা, রূপসা, খুলনা

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি রাইট বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Hwowlljksf788wf-Iu