শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:৪৩ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
বাগেরহাটে মানসম্মত পুষ্টি সেবা নিশ্চিতের জন্য জেলা সিএসও প্লাটফর্ম গঠন সম্পন্ন রূপসা উপজেলা কৃষি অফিসার এর আলাইপুর ব্লকের কৃষি কার্যক্রম পরিদর্শন টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতার সমাধিতে ইউজিসি’র ৩ সদস্যের শ্রদ্ধা নিবেদন মানসম্মত পুষ্টি সেবা প্রদানে  কিশোর-কিশোরীদের সম্পৃক্তকরণে  কিশোর-কিশোরী ফোরাম গঠন সভা অনুষ্ঠিত খুলনায় অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ অভিযান বন্ধ , পাউবো নোটিশ দিয়েই দায়িত্ব শেষ রূপসায় বিআরডিবির উপ-পরিচালকের ঋন বিতরণ ফকিরহাটে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী দিবস পালন কৃষি মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মশিউর রহমানের মহোদয়ের কৃষি কার্যক্রম পরিদর্শন আগামী প্রজন্মকে বাল্যবিয়ে ও নারী নির্যাতনহীন সমাজ উপহার দিতে হবে ডুমুরিয়ার রঘুনাথপুর ইউপি’র দু’টি ওয়ার্ডে সদস্য পদে উপ-নির্বাচন: প্রার্থী ৬ জন

সাবেক ওসি প্রদীপসহ ২৮ জনকে আসামি করে আদালতে নতুন অভিযোগ, তদন্ত করবে সিআইডি

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট টাইম মঙ্গলবার, ১৮ আগস্ট, ২০২০
  • ৮৮ জন সংবাদটি পড়েছেন

টেকনাফে কথিত বন্দুকযুদ্ধে সাদ্দাম হোসেন নামে এক যুবক নিহত হওয়ার ঘটনায় সাবেক ওসি প্রদীপসহ ২৮ জনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগ দায়ের হয়েছে। আদালত অভিযোগটি আমলে নিয়ে সিআইডিকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

মঙ্গলবার(১৮ আগষ্ট) দুপুরে কক্সবাজারের জৈষ্ঠ্য বিচারিক হাকিম (টেকনাফ-২) এর বিচারক মো. হেলাল উদ্দিনের আদালতে নিহতের মা গুলচেহারা অভিযোগটি দায়ের করেন বলে জানান তার আইনজীবী মো. আব্দুল বারী।
মামলায় টেকনাফ থানার সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মশিউর রহমানসহ ২৮ জনকে আসামি করা হয়েছে।

আসামিদের মধ্যে ২৭ পুলিশ সদস্য রয়েছেন। অন্য আসামিরা হলেন- এএসআই মো. আরিফুর রহমান, এসআই সুজিত চন্দ্র দে, এসআই অরুণ কুমার চাকমা, এসআই মো. নাজিম উদ্দিন ভুঁইয়া, এসআই নাজিম উদ্দিন, এসআই কামরুজ্জামান, এএসআই কাজী সাইফুদ্দিন, এএসআই নাজিম উদ্দিন, এএসআই মাঈন উদ্দিন, এএসআই মাজাহারুল ইসলাম, এএসআই নঈমুল হক, এএসআই মিশকাত উদ্দিন, এএসআই রামধন চন্দ্র দাশ, কনস্টেবল সাগর দেব, কনস্টেবল রুবেল শর্মা, কনস্টেবল আবু হানিফ, কনস্টেবল মো. শরিফুল ইসলাম, কনস্টেবল মো. আজিজ, কনস্টেবল দ্বীন ইসলাম, কনস্টেবল মো. বোরহান, কনস্টেবল মো. জসিম উদ্দিন, কনস্টেবল আব্দু শুক্কুর, কনস্টেবল মো. শেকান্দর, কনস্টেবল মহি উদ্দিন এবং টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের দফাদার নুরুল আমিন ওরফে নুরুল্লাহ। তাদের মধ্যে নুরুল আমিন ছাড়া অন্যরা হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁড়ি এবং টেকনাফ থানায় কর্মরত।

বাদী গুল চেহেরা টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের মৌলভীবাজার এলাকার সুলতান আহমদ ওরফে বাদশার স্ত্রী।
বাদীর আইনজীবী মো. আব্দুল বারী বলেন, গত ৪ জুলাই গুল চেহেরার ছেলে সাদ্দাম হোসেন ও মো. জাহেদ হোসেনকে পুলিশ বাড়ি থেকে আটক করে নিয়ে যায়। পরে তাদের ছেড়ে দিতে পুলিশ ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। দাবিকৃত টাকা দেওয়া না হলে তাদের মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়। পরে স্বজনরা জমি-জমা ও স্বর্ণালংকার বন্ধক রেখে পুলিশকে ৫ লাখ টাকা দেয়ার পর মো. জাহেদ হোসেনকে গত ৬ জুলাই একটি মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়। টাকা দেওয়ার পরও সাদ্দাম হোসেনকে ছাড়া হয়নি।

এই আইনজীবী বলেন, গত ৭ জুলাই গভীর রাতে টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়নের কম্বোনিয়া বড়ছড়া এলাকায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে সাদ্দাম হোসেন ও আব্দুল জলিল নামে দুজন গুরুতর আহত হন বলে পুলিশ দাবি করে। এ ঘটনায় তাদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে আনার পর চিকিৎসকের বরাত দিয়ে মৃত্যু দেখানো হয়েছে।

এ ঘটনায় নিহত সাদ্দাম হোসেনের মা গুল চেহেরা বাদী হয়ে মঙ্গলবার দুপুরে টেকনাফ থানার সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মশিউর রহমানসহ ২৮ জনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগ দায়ের করেন বলে জানিয়েছেন বাদীপক্ষের আইনজীবী ।

আব্দুল বারী বলেন, আদালত অভিযোগটি আমলে নিয়ে ঘটনাটি সিআইডিকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। তদন্তকারী কর্মকর্তার প্রতিবেদন আদালতে উপস্থাপনের পর ঘটনার সত্যতা পেলে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন : ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরো সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: রবিউল ইসলাম তোতা

প্রধান কার্য্যালয় : রামনগর পূর্ব রূপসা, রূপসা, খুলনা

আমাদের রূপসী ইউটিউব চ্যানেল

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি রাইট বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Hwowlljksf788wf-Iu