বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ০৭:৪০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
মিরপুরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে বৃদ্ধাকে কোদাল দিয়ে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা আটক -১ রূপসায় প্রতিবন্ধী যুবককে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে মারাত্মক আহত ! ডুমুরিয়ায় করোনা ও আম্পানে ক্ষতিগ্রস্হ মৎস্য চাষীদের মৎস্য খাদ্য সহায়তা প্রদান খুলনা জেলা ডিবি পুলিশের অভিযানে ১কেজি ৮শ গ্রাম গাঁজাসহ আটক-২ ডুমুরিয়ায়  কৃষকের অ্যাপ এর মাধ্যমে ডিজিটাল পদ্ধতিতে ধান সংগ্রহ কার্যক্রমের উদ্বোধন খুলনায় যুবককে কুপিয়ে হত্যা ! রূপসায় কিশোরী ধর্ষনের অভিযোগে যুবক আটক রূপসায় করোনাকালীন দূঃসময়ে কর্মহীন ২শতাধিক পরিবারে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করলেন অধ্যাপক চাইনিজ স্পীডবোট দূর্ঘটনায় অলৌকিকভাবে বেঁচে যাওয়া মিমের মা-বাবা-বোন চিরনিদ্রায় শায়িত খুলনা জেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদের আহ্বায়ক কমিটি গঠন

ইসলামী চিন্তাবিদ আহমদ শফীর জীবনাবসান

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট টাইম শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১৪৩ জন সংবাদটি পড়েছেন

হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফী ইহ জগতে আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রজিউন)।  ১৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে পুরান ঢাকার গেন্ডারিয়ায় আজগর আলী হাসপাতালে তিনি  শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ।

চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার আল-জামিয়াতুল তাহলিমা দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম মাদ্রাসার সাবেক মহাপরিচালক ও হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা আহমদ শফী আলোচনায় আসেন নারী উন্নয়ন নীতিমালার বিরোধিতা করে। ২০১১ সালে তিনি এই নীতিমালার বিরুদ্ধে চট্টগ্রামে কর্মসূচি ঘোষনা করেন। তার আহবানে সাড়া দিয়ে বিক্ষোভ-প্রতিবাদে মাঠে নামেন ঢাকার আলেমরা। পরে ২০১৩ সালে ব্লগার রাজীব হায়দারের (থাবা বাবা) ব্লগিংকে কেন্দ্র করে সারাদেশেই বিক্ষোভে নামে কওমি মাদ্রাসার আলেম ও শিক্ষার্থীরা। তখন থেকেই পুরো দেশের আলেম সমাজের নেতৃত্বে চলে আসেন আহমদ শফী।

সারাদেশে আলোচিত আল্লামা আহমদ শফী ১৯২০ সালে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া থানার পাখিয়াটিলা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন ।  তিনি  ১০ বছর বয়সে হাটহাজারী মাদ্রাসায় ভর্তি হন। ১৯৪১ সালে তিনি ভারতের দারুল উলুম দেওবন্দ মাদ্রাসায় ভর্তি হয়ে চার বছর হাদিস, তাফসির, ফিকাহ শাস্ত্র অধ্যয়ন করে দাওরায়ে হাদিস সমাপ্ত করেন।

১৯৪৬ সালে দারুল উলুম হাটহাজারীতে শিক্ষক হিসেবে নিযুক্ত হন। ১৯৮৬ সালে প্রতিষ্ঠানের মজলিসে শূরার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মহাপরিচালক পদে দায়িত্ব পান। পরবর্তী সময়ে শায়খুল হাদিসের দায়িত্বও তিনি পালন করেন। ২০০৮ সালে তিনি কওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড-বেফাকের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। ২০১০ সালের ১৯ জানুয়ারি দারুল উলুম হাটহাজারী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত ওলামা সম্মেলনে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ গঠন করা হয়। তিনিই এর প্রতিষ্ঠাতা আমির মনোনীত হন।
আল্লামা শাহ আহমদ শফীর দাবির মুখে ১১ এপ্রিল ২০১৭ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কওমি মাদ্রাসার দাওরায়ে হাদিসের সনদকে এমএ (আরবি-ইসলামিক স্টাডিজ)-এর সমমান ঘোষণা করেন।

ব্যক্তিগত জীবনে তার স্ত্রী, দুই ছেলে, দুই মেয়ে, নাতি, নাতনি রয়েছে। আল্লামা আহমদ শফী কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড, আল হাইয়াতুল উলইয়া’র চেয়ারম্যান ও আন্তর্জাতিক মজলিসে তাহাফফুজে খতমে নবুওয়াত বাংলাদেশের সভাপতি ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন : ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরো সংবাদ

আমাদের রূপসী ইউটিউব চ্যানেল

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: রবিউল ইসলাম তোতা

প্রধান কার্য্যালয় : রামনগর পূর্ব রূপসা, রূপসা, খুলনা

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি রাইট বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Hwowlljksf788wf-Iu