রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০২:৪১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
যশোর জেলা গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ৮০ বোতল ফেন্সিডিলসহ আটক-১ খুলনায় ই-ফাইল বিষয়ে প্রশিক্ষণের উদ্বোধন ফকিরহাটে বৃদ্ধা মায়ের উপর সন্তানের অত্যাচারের প্রতিবাদ ও শাস্তির দাবিতেএলাকাবাসির মানববন্ধন বাগেরহাটে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা শিক্ষকদের মানববন্ধন রূপসায় সাবেক সেনা সদস্যের দোকানে দূঃধর্ষ চুরি ! মনিরামপুরের ক্লুলেস জোড়া খুনের রহস্য উদঘাটন গ্রেফতার-১, নারী নির্যাতন ও বাল্যবিয়ে বন্ধে নারীদের শক্তিশালী মঞ্চ গড়ে তোলা জরুরী রূপসায় শ্রমিক নেতা রাজুর মৃত্যুতে শ্রমিক ইউনিয়নের শোক বিবৃতি রূপসায় ৪০ দিন ব্যাপী ফুটবল প্রশিক্ষনের সমাপনী শেখ হাসিনা সরকার জাতি, ধর্ম, বর্ণ বির্নিশেষে দেশ পরিচালনা অব্যাহত রেখেছে- এমপি সালাম মূর্শেদী

খুলনায় রক্তদাতা শিক্ষার্থীদের নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট টাইম রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৭২ জন সংবাদটি পড়েছেন
নিজস্ব প্রতিবেদকঃ খুমেক হাসপাতালে রক্ত দিতে গেলে শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) গভীর রাতে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) শিক্ষার্থীদের মারধর করেন স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আল আমিন মৃধা ও তার সহযোগীরা।
রবিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে এঘটনার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে খুবি শিক্ষার্থীরা। মানববন্ধন চলাকালে বক্তারা অবিলম্বে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী নিপীড়কদের গ্রেপ্তারের দাবি জানান। অন্যথায় কঠোর কর্মসুচির ঘোষণা হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন তারা।
বক্তারা বলেন, একজন মুমূর্ষু রোগীকে রক্ত দেয়ার উদ্দেশ্যে দু’জন ডোনারসহ ছয়জন শিক্ষার্থী শুক্রবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে খুমেক হাসপাতালে যান। রক্তের ব্যাগ কেনার জন্য হাসপাতালের বিপরীতে ফার্মেসিতে দাঁড়িয়ে ছিলেন তারা। এসময় একটি প্রাইভেটকার দ্রুত ও বেপরোয়াভাবে শিক্ষার্থীদের পা ঘেঁষে চলে যায়। অল্পের জন্য রক্ষা পেয়ে চালককে প্রতিবাদ জানাতে গেলে গাড়ির ভেতর থেকে দু’জন বেরিয়ে এসে শিক্ষার্থীদের অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে এবং জামার কলার টেনে ধরে। শিক্ষার্থীদের পরিচয় জানতে পেরে আরও চড়াও হয়ে পার্শ্ববর্তী গলিতে নিয়ে সংঘবদ্ধভাবে শারীরিক নির্যাতন করে ও প্রাণনাশের হুমকি দেয়।
বক্তারা আরও বলেন, একপর্যায়ে শিক্ষার্থীরা খুমেকের ইন্টার্ন হোস্টেলের ভেতরে আত্মগোপন করেন। এরপর নিরাপদে ক্যাম্পাসে ফেরার জন্য তারা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেন। বাংলা ডিসিপ্লিনের সহকারী অধ্যাপক আবুল ফজল অ্যাম্বুলেন্স পাঠালে তারা ভোর ৫টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিরে আসেন। শিক্ষার্থীদের পক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে অবিলম্বে দায়ী ব্যক্তির বিরুদ্ধে আইনী পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।
এসময় বক্তব্য রাখেন, খুবি শিক্ষার্থী ওয়ালী, অনির্বাণ, সদানন্দ, আশিক ও মামুন প্রমুখ।
অন্যদিকে, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সদস্য আল আমিন মৃধা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, শিক্ষার্থীরাই প্রথমে গালাগাল করে। তবে আমি তাদের মারধর করিনি। অন্যরা করতে পারে।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন : ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরো সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: রবিউল ইসলাম তোতা

প্রধান কার্য্যালয় : রামনগর পূর্ব রূপসা, রূপসা, খুলনা

আমাদের রূপসী ইউটিউব চ্যানেল

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি রাইট বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Hwowlljksf788wf-Iu