মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ০১:৪২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
সাতক্ষীরায় মাদক বিক্রিতে বাধা দেওয়ায় কিশোর কে কুপিয়ে জখম খুলনায় দলীয় শৃংখলা ভঙ্গের অপরাধে দল থেকে সাময়িক বহিস্কার এফ এম ওহিদুজ্জামান খুলনার দিঘলিয়ায় প্রতিপক্ষের ধারালো অস্ত্রের কোপে যুবক নিহত গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে বিএনপি নেতা গ্রেফতার সাতক্ষীরা করোনা হাসপাতালে আবারো চিকিৎসা সরঞ্জাম দিলেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান খুলনার কৃতি সন্তান ড. এনামুল হক লাবুর অকাল মৃত্যু : বিভিন্ন সংগঠনের শোক সাতক্ষীরা উপকূলে ফ্রেন্ডশিপের সাড়ে চার লক্ষ ম‍্যানগ্রোভ চারা রোপন কর্মসূচি শ‍্যামনগরের শংকরকাটি সুন্নিয়া দাখিল মাদরাসায় কর্মচারী নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগে আদালতে মামলা। সাতক্ষীরায় জমি দখলে ব্যর্থ হয়ে এক সাংবাদিক ও তার পিতাকে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা সাদুল্লাপুরে ২টি পেট্রোল বোমা ও ৩টি ককটেল সাদৃশ্য বস্তু উদ্ধার

ডুমুরিয়ায় ফিল্মী কায়দায় অব: কলেজ শিক্ষকের জমির গাছ পালা কেঁটে জবর দখলের অভিযোগ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট টাইম রবিবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৮৪ জন সংবাদটি পড়েছেন

লতিফ মোড়ল, ডুমুরিয়াঃ  খুলনার ডুমুরিয়ায় অবসরপ্রাপ্ত একজন কলেজ শিক্ষকের প্রায় অর্ধশত বছরের ক্রয়কৃত ও ভোগ-দখলীয় জমির গাছপালা ফিল্মী স্টাইলে কেঁটে জবরদখলের চেষ্টা চালিয়েছে রঘুনাথপুর ইউনিয়নের গজেন্দ্রপুর সবুজ সংঘ ক্লাবের সদস্যবৃন্দ। এ ঘটনায় অব: কলেজ শিক্ষক ধর্মদাস চ্যাটার্জী বাদী হয়ে সবুজ সংঘের সভাপতি রুপ কুমার মন্ডলসহ    ১১ জন জনকে বিবাদী করে খুলনার বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে  ১৪৫ ধারায় একটি  মামলা দায়ের করেন। শুনানী শেষে বিজ্ঞ আদালত শান্তি শৃংখলা বজার রাখার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলার বিবরণ ও এলাকা বাসী সূত্রে জানা গেছে, ডুমুরিয়া উপজেলার রঘুনাথপুর ইউনিয়নের গজেন্দ্রপুর মৌজার ৩৩ শতক জমি ১৯৬১ ও ১৯৬৯ সালে ঐ গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক ধর্মদাস চ্যাটার্জী ও তার পিতার নামে ২টি দলিলে ক্রয় করেন। জমিটি কবলা দলিলমূলে হস্তান্তরের পর অজ্ঞাত কারণে  ১৪ শতক জমি শত্রু সম্পত্তিতে পরিণত হয়।

অধ্যাপক (অবঃ) ধর্মদাস চ্যাটার্জী বলেন; জমিটি বিধিবর্হিভুতভাবে এনিমি তালিকাভুক্ত হলে অবমুক্তির জন্য ২০১৩ সালে প্রত্যার্পন ট্রাইব্যুনালে মামলা করা হয়। বিজ্ঞ আদালত ১ ধারা আইনবলে  খ, তফসীলের ভূমি মালিকগণের উপর প্রত্যার্পন করেন। ক্রয়ের পর থেকে নাম পত্তনপূর্বক খাজনা ১৪২২ সাল পর্যন্ত পরিশোধ করে ভোগ দখলে আছি। ঐ জমিতে নির্মিত পাকা বাড়ি ও গাছপালা রয়েছে।

কিন্তু আইনের ফাঁক ফোকরে গজেন্দ্রপুর সবুজ সংঘ ক্লাবের সদস্যরা জমিটির আকৃতি প্রকৃতি পরিবর্তন করার চেষ্টা ও অবৈধভাবে দখল করার পায়তারা করতে থাকে। এ নিয়ে ডুমুরিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ করলে জমিজমার বিষয় হওয়ায় থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আদালতে যাওয়ার পরামর্শ দেন।

এদিকে গজেন্দ্রপুর সবুজ সংঘ ক্লাবের সভাপতি রূপ কুমার মন্ডল ইউপি চেয়ারম্যানের নিকট একটি দরখাস্ত করেন।

ইউনিয়ন পরিষদের নোটিশ পেয়ে ধর্মদাস চ্যাটার্জী ১০ দিনের সময় প্রার্থনা করে একটি আবেদন করেন। পরবর্তী ধার্যকৃত দিনে ইউপি চেয়ারম্যান পক্ষদ্বয়কে নিয়ে শালিশী বৈঠক বসেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রঘুনাথপুর ইউপি চেয়ারম্যান খান শাকুর উদ্দীন বলেন, গজেন্দ্রপুর সবুজ সংঘের সভাপতি রূপ কুমার মন্ডল  ১৫ সেপ্টেম্বর তারিখে বিরোধীয় জমি নিয়ে আমার কার্যালয়ে একটা অভিযোগ দিয়েছিলেন। বিষয়টি নিয়ে আমি দুই পক্ষের উপস্থিতিতে শান্তিপূর্ণ একটি সমাধানের কথা বলেছিলাম। এমনকি ধর্মদাস বাবু এলাকার একজন গুরুজন ব্যক্তি হিসেবে উনার নেতৃত্বে এবং ত্বত্তাবধানে শান্তিপূর্ণভাবে এলাকার একটি প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নমূলক কাজ হয় সে বিষয়ে আমি ক্লাব কর্তৃপক্ষকে সহনশীলতার পরিচয় দেয়ার অনুরোধ জানিয়েছি। ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের পরামর্শ উপেক্ষা করে ২ অক্টোবর সকালে ক্লাবের সদস্যরা ফিল্মী কায়দায়  ঐ জমিতে অবৈধভাবে প্রবেশ করে গাছপালা কেটে সাবাড় করে দেয় এবং জবর দখলের চেষ্টা চালায়।

এ ঘটনায় ধর্মদাস চ্যাটার্জী ৪ অক্টোবর খুলনা অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে  ১১ জনের নামে একটি মামলা দায়ের করেন। বিজ্ঞ আদালত ১৩ অক্টোবর ১৪৫(১) ধারামতে বিবাদিদের দখল বিষয়ে লিখিত বিবৃতি দাখিলের জন্য বলেন এবং সংশ্লিষ্ট থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে ঐ জমিতে শান্তি শৃংখলা বজার রাখার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশ দেন।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে গজেন্দ্রপুর সবুজ সংঘের সভাপতি রূপ কুমার ম-ল জানান; ওই জমির মালিক পক্ষ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তির উপস্থিতিতে সবুজ সংঘের নামে দান করেছেন। এ ছাড়া জমির একটা বড় অংশ সরকারি খাস। তাই সম্প্রতি ক্লাবের মিটিং এর সিদ্ধান্তে  আমরা গাছপালা ও আগাছা সাফ করে বালি ভরাটের উদ্যোগ নিয়েছিলাম। কিন্ত বিষয়টা নিয়ে ধর্মদাস বাবু কর্তৃক একটা মামলা দায়ের করায় তা স্থগিত রাখা হয়েছে।

এদিকে জমি দান করার বিষয়ে ধর্মদাস চ্যাট্যার্জী এটা সম্পূর্ণ বানোয়াট ও ভিত্তিহীন বলে জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন : ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরো সংবাদ

আমাদের রূপসী ইউটিউব চ্যানেল

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: রবিউল ইসলাম তোতা

প্রধান কার্য্যালয় : রামনগর পূর্ব রূপসা, রূপসা, খুলনা

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি রাইট বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Hwowlljksf788wf-Iu