বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ০৫:০৮ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
খুলনা জেলা এসডিজি ফোরামের ভার্চুয়াল সভা অনুষ্ঠিত ফকিরহাটে সড়ক দূর্ঘটনায় ট্রাক চালক নিহত, আহত-২ বর্তমান সরকার সর্বদা গরীব অসহায় এবং দুঃস্থদের সাহায্য করে আসছেন-রূপসায় জুম কনফারেন্সে এমপি সালাম মূর্শেদী “প্রিয়া ইসলাম ফাতিহা” হতে পারে সবার জীবনে অনুকরনীয় ডুমুরিয়া কলেজ মাঠে মানুষ বিক্রির হাট !           রূপসায় সুন্দরবনের জলদস্যু রাজু গ্রেফতার খুলনা জেলা ডিবি পুলিশের অভিযানে ২৫০ গ্রাম গাঁজাসহ আটক-১ পাবনার আটঘরিয়ায় গৃহিনীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ ! হত্যা নাকি আত্মহত্যা ? দিঘলিয়ায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুগ্রুপের সংঘর্ষ, আটক-৭ ফকিরহাটে কলেজ ছাত্রী ধর্ষনের ঘটনায় আটক-১

আজ বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমীন ও বীর বিক্রম মহিবুল্লাহর ৪৯তম সাহাদত বার্ষিকী

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট টাইম বৃহস্পতিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ১১৩ জন সংবাদটি পড়েছেন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃআজ ১০ ডিসেম্বর বীর শ্রেষ্ঠ রুহুল আমীন ও বীর বিক্রম মো. মহিবুল্লাহর ৪৯তম সাহাদত বার্ষিকী। দিনটি যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপন করেছে বাংলাদেশ নৌবাহিনী, রূপসা প্রেসক্লাব ও বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী শ্রমিকদল। দিনের শুরুতে বীরদ্বয়ের সম্মানে বাংলাদেশ নৌবাহিনী পূর্ব-রূপসাস্থ বীরদ্বয়ের মাজারে পুস্পস্তবক অর্পন ও কুচকাওয়াজের মাধ্যমে যথাযথ সম্মান প্রদর্শন করে। এরপর রূপসা প্রেসক্লাব ও জাতিয়তাবাদী শ্রমিকদল রূপসা উপজেলা শাখা পর্যায়ক্রমে পুস্পস্তবক অর্পন ও বীরদ্বয়ের আত্মার শান্তি কামনায় দোয়া-মোনাজাত করে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন রূপসা প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. রবিউল ইসলাম তোতা, সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম ডালিম, সাবেক সভাপতি এস এম মাহবুবুর রহামান, সাংগঠনিক সম্পাদক আল-মাহামুদ প্রিন্স, কোষাধ্যক্ষ তৌহিদুল ইসলাম কচি, দপ্তর ও প্রচার সম্পাদক হামিদুল হক,সদস্য এম এ আজিম, তরিকুল ইসলাম, আকতার খান ও মনিরুল ইসলাম মনি। বিকাল ৩টায় রূপসা প্রেসক্লাব অডিটরিয়ামে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশ জাতিয়তাবাদী শ্রমিকদল রূপসা উপজেলা শাখার সভাপতি মো. জালাল উদ্দিন মোল্লা সাধারণ সম্পাদক ইউনুস গাজী, উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. সাইফুর রহামান মোল্লা,নৈহাটী ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক দিদারুল ইসলাম দিদার,খুলনা জেলা যুবদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মমিনুর রহামান সাগর, রূপসা থানা যুবদলের সদস্য সচিব মো. রুবেল মীর, রবিউল ইসলাম বাবু, মো. আব্দুল বারিক, মো. জালাল হাওলাদার, মাহফুজুর রহামান মাফুজ ও মিজানুর রহামান মিজান।

১৯৭১ সালের এই দিনে দেশ স্বাধীনের মাত্র ছয়দিন আগে খুলনাকে শত্রুমুক্ত করার অঙ্গিকার নিয়ে রণতরী পলাশ, পদ্মা ও গানবোট পানভেল নিয়ে যাত্রাকালে শিপইয়ার্ডের অদূরে বিমানের নিক্ষিপ্ত গোলাবর্ষনে ‘পলাশে’ থাকা স্বাধীন বাংলার এ দুই সূর্যসন্তানসহ অসংখ্য মুক্তিযোদ্ধা শহীদ হন। পরে স্থানীয়রা তাদের মৃতদেহ রূপসা নদীর পূর্ব পাড়ে সমাহিত করে।

প্রসঙ্গত, বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন ১৯৩৪ সালের ২ ফেব্রুয়ারি নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলার বাঘপাঁচড়া (বর্তমান রুহুল আমিন নগর) গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম মোহাম্মদ আজহার পাটোয়ারী ও মায়ের নাম জোলেখা খাতুন। ছয় ভাইবোনের মধ্যে তিনি ছিলেন বড়। ১৯৫৩ সালে জুনিয়র মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে পাকিস্তান নৌবাহিনীতে যোগদান করেন।

১৯৭১ সালের এপ্রিলে ঘাঁটি থেকে পালিয়ে যান। বাড়িতে গিয়ে ছাত্র, যুবক ও সামরিক-আধাসামরিক বাহিনীর লোকদের মুক্তিযুদ্ধের প্রশিক্ষণ দেন। এর কিছুদিন পর ৯ নম্বর সেক্টরে মুক্তিযুদ্ধে যোগদান করেন।

অপরদিকে বীরবিক্রম মোহাম্মদ মহিবুল্লাহ ১৯৪৪ সালের ৩১ আগষ্ট চাঁদপুরের শাহেদপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম মো. সুজাত আলী ও মায়ের নাম রফিকাতুন্নেছা। তিনি ১৯৬২ সালে নৌবাহিনীতে যোগদান করেন এবং একই সেক্টরে মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহন করেন। ১৯৭১ সালে পাকিস্তানি সেনাবাহিনী তার গ্রামের বাড়ি পুড়িয়ে দেয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন : ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরো সংবাদ

আমাদের রূপসী ইউটিউব চ্যানেল

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: রবিউল ইসলাম তোতা

প্রধান কার্য্যালয় : রামনগর পূর্ব রূপসা, রূপসা, খুলনা

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি রাইট বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Hwowlljksf788wf-Iu