সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১১:০৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে অজ্ঞাত নবজাতকের মরদেহ উদ্ধার রূপসায় ইমাম পরিষদ ও পূজা উদযাপন পরিষদ নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় রূপসায় যথাযোগ্য মর্যাদায় শেখ রাসেল দিবস পালিত রূপসায় শিশু যৌন নিপিড়নের অভিযোগে থানায় মামলা ডুমুরিয়ায় শেখ রাসেল দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও তাল বীজ রোপন খুলনার পাইকগাছার দুটি বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার ১০ মাসেও সংস্কার হয়নি ! পাইকগাছায় যথাযোগ্য মর্যাদায় শেখ রাসেল দিবস পালিত শ‍্যামনগরে মানিকখালী পুজা বাজারে দুই সন্তনের জননীকে ধর্ষন চেষ্টাঃ থানায় অভিযোগ শ্যামনগরে যথাযোগ্য মর্যাদায় শেখ রাসেল দিবস পালিত খুলনায় মিষ্টির দোকানে র‌্যাবের অভিযান ৫ দোকানীকে ৬ লাখ টাকা জরিমানা

খুলনার বহুলালোচিত নারী নীলা’র প্রতারণা ও জালিয়াতির ফিরিস্তি তুলে ধরে শাস্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট টাইম সোমবার, ২২ মার্চ, ২০২১
  • ১১৯ জন সংবাদটি পড়েছেন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বিয়ের নামে বহু পুরুষকে ফাঁদে ফেলে অর্থ-সম্পদ লুট, প্রতারণা-জালিয়াতি ও নিরীহ লোকদের মামলায় ফেলে হয়রাণিসহ বিভিন্ন ধরণের অভিযোগ উঠেছে খুলনার বহুলালোচিত নারী সুলতানা পারভীন নীলা ওরফে বৃষ্টি’র বিরুদ্ধে। তার ফাঁদে পড়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন একাধিক ব্যক্তি। তার প্রতারণা ও জালিয়াতিসহ অপকর্মের ফিরিস্তি তুলে ধরে তাকে গ্রেফতার এবং কঠোর শাস্তির দাবিতে সোমবার বেলা সাড়ে ১২টায় খুলনা প্রেস ক্লাবের হুমায়ূন কবীর বালু মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নগরীর নাজিরঘাট এলাকার মৃত আব্দুল জলিলের পুত্র মোঃ আব্দুল বাকী।
লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, নগরীর সোনাডাঙ্গা আবাসিক এলাকার সুলতানুল আলম বাদলের কন্যা সুলতানা পারভীন নীলা ওরফে সুলতানা পারভীন বৃষ্টি ওরফে সুলতানা পারভীন নীলা এ পর্যন্ত ৮ এর অধিক বিয়ে করেছেন। বিয়ে করে কিছুদিন পর সেই স্বামীকে ছেড়ে দেয়া এবং তার কাছ থেকে দেনমোহরের টাকাসহ নানা কৌশলে বাড়ি-গাড়ী হাতিয়ে নেয়াই তার ব্যবসা। তার মূল টার্গেট সম্পদশালী, ব্যবসায়ী, উচ্চপদস্থ চাকরিজীবী ও প্রবাসী পুরুষ। প্রথমে টার্গেট নিশ্চিত করে তিনি ধীরে ধীরে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে নিজ দেহের সৌন্দর্য ও কথা মালার মারপ্যাঁচে আটকে ফেলেন টার্গেটকৃত পুরুষদের।

সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করা হয়, ১৯৯৯ সালে সুলতানা পারভীনের প্রথম বিয়ে হয় মাদারীপুর জেলার হরিকুমারিয়া গ্রামের আলহাজ্ব আব্দুল হাকিম শিকদারের জাপান প্রবাসী ছেলে শাহাবউদ্দিন সিকদারের সাথে। নিলার বয়স ছিল তখন ১৫ বছরেরও কম। কিছুদিন যেতে না যেতেই স্বামীর ঘর থেকে নগদ অর্থ ও স্বর্ণালংকার নিয়ে বেরিয়ে যায় সে। তার উশৃঙ্খল জীবনযাপন ও মালামাল চুরির ঘটনায় শাহাবুদ্দিন শিকদার মাদারীপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করেন। যার নং- ৭৩৮, তারিখ ১৯ ডিসেম্বর ১৯৯৯। যদিও ২০০১ সালে তার সঙ্গে বিচ্ছেদ ঘটে নীলার।

তার দ্বিতীয় বিয়ে হয় ২০০৫ সালের ৬ মে খুলনা মহানগরীর শেরেবাংলা রোডস্থ মোঃ মকবুল হোসেনের ছেলে এসএম মুনির হোসেনের সাথে। তখন প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে নিজেকে ‘কুমারী’ দাবি করে মুনির হোসেনের সাথে এক লাখ টাকার কাবিননামায় বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয় সে। কিন্তু বিয়ের কিছুদিনের মধ্যে নীলার উশৃংখল জীবনযাপন এবং ও উগ্র আচরণের শিকার হন স্বামী মুনির। এক পর্যায়ে স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ অর্থ নিয়ে এ বাড়ি থেকেও বেরিয়ে যান নীলা। এ ঘটনায় একই বছরের ১০ ডিসেম্বর মুনির হোসেন তাকে তালাক দেন। যদিও পরবর্তীতে তার কাছ থেকে অর্থ আদায় করতে সুলতানা পারভীন নীলা ২০০৬ সালে মনির হোসেনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন এবং পারিবারিক আদালতে মামলা দায়ের করেন।

ওই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই সুলতানা পারভীন প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে আবারও নিজেকে ‘কুমারী’ দাবি করে ২০০৮ সালের এপ্রিল মাসে নগরীর খালিশপুর ওয়ারলেস ক্রস রোডের মৃত আলহাজ্ব আব্দুল মান্নানের ছেলে ঠিকাদার মইনুল আরেফিন বনিকে বিয়ে করেন। তবে, শর্ত থাকে বিয়ের পর নীলা তার আত্মীয়ের মাধ্যমে বনিকে ইতালি নিয়ে যাবে। শর্ত মোতাবেক বিয়ের পর তার কাছ থেকে মোটা অঙ্কের অর্থ হাতিয়ে নিয়ে কিছুদিন যেতে না যেতেই নীলার প্রতারণা প্রকাশ পেতে থাকে। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যেও বিচ্ছেদ ঘটে। এ ঘটনায় নীলা নিজেকে কুমারী পরিচয় দিয়ে প্রতারণার আশ্রয় গ্রহণ করায় স্বামী শেখ মঈনুল আরেফিন বনি খুলনার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে ২০২০ সালের ডিসেম্বরে নীলার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মামলাটি বর্তমানে তদন্তাধীন রয়েছে। তবে যথারীতি অর্থ আদায় করতে প্রতারক নীলা বনি’র বিরুদ্ধেও খুলনার বিভিন্ন আদালতে একাধিক মামলা দায়ের করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন : ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরো সংবাদ

আমাদের রূপসী ইউটিউব চ্যানেল

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: রবিউল ইসলাম তোতা

প্রধান কার্য্যালয় : রামনগর পূর্ব রূপসা, রূপসা, খুলনা

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি রাইট বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Hwowlljksf788wf-Iu