শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৫:২৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
মুন্সীগঞ্জের সাংবাদিককে নারায়ণগঞ্জে কুপিয়ে জখম দিঘলিয়ায় বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে একজন কে ভ্রাম্যমাণ আদালতে সাজা প্রদান খুলনার দিঘলিয়ায় পাট গুদামের দেয়াল ধ্বসে থানায় ২ ডায়েরি  নোয়াখালীতে ইসলামী বক্তা আবু ত্বোহার সন্ধানে ছাত্র ও যুব সমাজের মানববন্ধন ভাসানচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মাহে আলমকে বরিশাল রেঞ্জে বদলি গাইবান্ধায় নদ-নদীতে পানি বৃদ্ধিতে নৌকা কারিগরদের ব্যস্ততা বেড়েছে বগুড়ায় ডিবি পুলিশের অভিযানে ৪১টি চোরাই মোবাইলসহ আটক-৪ গাজীপুরে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ হতদরিদ্র ৬৪ পরিবারে স্বাস্থ্যসেবা কার্ড বিতরণ সিলেটের শ্রীমঙ্গলে ছায়াবৃক্ষ সিনেমার শুটিং চলছে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের উজানচরে ক্যান্সারে আক্রান্ত স্ত্রীকে বাঁচাতে স্বামীর আকুতি

কয়রার মানুষের প্রাণের দাবি ”ত্রাণ নয় টেকসই বেড়িবাঁধ চাই”

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট টাইম মঙ্গলবার, ১ জুন, ২০২১
  • ৬১ জন সংবাদটি পড়েছেন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃপূর্ব অভিজ্ঞতার আলোকে ”ত্রাণ নয় টেকসই বেড়িবাঁধ চাই” এমন শ্লোগানকে সামনে রেখে স্থায়ী বেড়িবাঁধ নির্মাণের দাবিতে উপকূলীয় কয়রায় ঘূর্ণিঝড় ইয়াস দুর্গত এলাকার ভুক্তভোগী মানুষের আহাজারীতে চারিদিকে আকাশ-বাতাস যেনো ভারী উঠেছে।

মঙ্গলবার (১ জুন) দুর্গতদের খোজ-খবর নিতে স্থানীয় সংসদ সদস্য আক্তারুজ্জামান বাবু উপজেলার সবচেয়ে স্পর্শকাতর ভাঙন কবলিত দশালিয়া এলাকা পরিদর্শনে যান। তিনি বাঁধে পৌঁছলে স্বেচ্ছাশ্রমে কাজ করা হাজার হাজার গ্রামবাসী টেকসই বাঁধের দাবিতে বিক্ষোভ শুরু করেন। এ সময় সংসদ সদস্য তাদেরকে দ্রুত টেকসই বাঁধ নির্মান হবে বলে আশ্বস্ত করেন। এসময় সাংসদ গ্রামবাসীদের সঙ্গে বাঁধ মেরামতে অংশ নেন।

উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে মতবিনিময় সভায় আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের প্রসঙ্গ। সোমবার খুলনা জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ দুর্গতদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণকালেও মানুষ একই দাবি করেন। এদিকে ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের ৬ দিন কেটে গেলেও কয়রা উপকূল ভেঙে যাওয়া বেড়িবাঁধ মেরামত না হওয়ায় চরম দূর্ভোগে দিনাতিপাত করছে পানিবন্দি হাজার হাজার মানুষ।

গত ২৬ মে ঘূর্ণিঝড় ইয়াশ এর প্রভাবে পাউবোর বেড়িবাঁধ ভেঙে উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়ন নোনা পানিতে নিমজ্জিত হয়। গ্রামবাসী স্বেচ্ছাশ্রমে কয়েকটি বাঁধ আটকাতে সক্ষম হলেও মহারাজপুরের দশালীয়া ও উত্তর বেদকাশী গাতিরঘেরি বাঁধ দিয়ে অব্যাহত জোয়ারের পানিতে তলিয়ে আছে ৩ ইউনিয়নের অন্তত ৪০টি গ্রাম, এতে করে পানিবন্দি হয়েছে প্রায় অর্ধ লক্ষাধিক মানুষ।

বাগালি ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সাত্তার পাড় জানান, দশালিয়ার বাঁধ ভেঙে তার ইউনিয়নে ৩৫ গ্রামের মধ্যে ১৫টি গ্রাম পানিতে তলিয়ে আছে। ঘরবাড়ি সহায়-সম্বল হারিয়ে তারা অমানবিক জীবন যাপন করছে। ত্রাণ সামগ্রী বলতে গত ছয় দিনে ৫০ বস্তা শুকনো খাবার ছাড়া কিছুই জোটেনি।

তিনি বলেন, শুনেছি উপজেলা পরিষদ থেকে ১ টন চাল ও ২৫ হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে কিন্তু আমি সেটা পায়নি। এসময় তিনি ত্রাণ নয় টেকসই বাঁধের দাবি করেন।

মহারাজপুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল মামুন লাভলু বলেন, আমার ইউনিয়নে ৩৬ টি গ্রামের মধ্যে ২৫ গ্রাম পানিতে প্লাবিত হয়েছে। পানিবন্দি মানুষ সহায়-সম্বল হারিয়ে মানবতার জীবনযাপন করছে। এসময় তিনি টেকসই বাঁধের দাবি তুলে ধরেন।

স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আক্তারুজ্জামান বাবু বলেন, ষাটের দশকে নির্মিত বাঁধগুলো দীর্ঘদিন সংস্কার না হওয়ায় ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। এসব বাঁধ জোয়ারের পানির চাপ সহ্য করতে পারছে না। এজন্য সরকার টেকসই বাঁধ নির্মাণের মেগা প্রকল্প নিয়েছে। সেই কাজ শুরু হওয়ার আগে বাঁধের ঝুঁকিপূর্ণ স্থানসমূহ জরুরি ভিত্তিতে সংস্কারের জন্য মন্ত্রণালয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়। পানিসম্পদ উপমন্ত্রী সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন : ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরো সংবাদ

আমাদের রূপসী ইউটিউব চ্যানেল

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: রবিউল ইসলাম তোতা

প্রধান কার্য্যালয় : রামনগর পূর্ব রূপসা, রূপসা, খুলনা

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি রাইট বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Hwowlljksf788wf-Iu