শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ১০:০০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
গাইবান্ধা জেলা পুলিশের এ‍্যাম্বুলেন্স ও অক্সিজেন সেবার উদ্বোধন সুন্দরগঞ্জে ঘন ঘন লোডশেডিং দুর্বিষহ জনজীবন! দেখার কেউ নেই যশোর জেলা আওয়ামীলীগের কমিটি গঠনে আত্মীয় করনের অভিযোগ আওয়ামীলীগের সদ্য বহিস্কৃত নেত্রী হেলেনা জাহাঙ্গীর ৩ দিনের রিমান্ডে ফুলতলায় জেলা ডিবি পুলিশের অভিযানে ২০ পিচ ইয়াবাসহ আটক-১ পলাশবাড়ীতে ট্রাক চাপায় সিএনজির চালকসহ নিহত ৪ আহত ৩ গোবিন্দগঞ্জে কল দিলেই করোনা রোগীর কাছে পৌঁছে যাচ্ছে ফ্রী অক্সিজেন পলাশবাড়ীতে কৃত্রিম পা লাগানো হিরোইন বিক্রেতা আটক গোবিন্দগঞ্জে সড়ক দূর্ঘটনায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত সুন্দরবনের বাঘ রক্ষায় সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে

পানি উন্নয়ন বোর্ডের ভুল সিদ্ধান্তের কারণে উপকূলীয় অঞ্চলের মানুষগুলো সর্ব শান্ত হচ্ছে (৫র্ম-পর্ব)

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট টাইম শনিবার, ৩ জুলাই, ২০২১
  • ৬৬ জন সংবাদটি পড়েছেন

রাকিবুল হাসান শ্যামনগরঃসাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলার পানি উন্নয়ন বোর্ডের ভুল সিদ্ধান্তের কারণে প্রতিনিয়ত নদী ভাঙ্গনের কবলে পড়ে সর্ব শান্ত হচ্ছে উপকূলীয় অঞ্চলের ইউনিয়নের সাধারণ জনগণ।

বর্তমানে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ভেড়ি বাদ এর কাজ চলমান রয়েছে। সেই কাজ নিয়ম না মেনে স্থানীয় জনগণের তোয়াক্কা না করে বা নিষেধ না মেনে অবিচলভাবে কাজ করে চলেছেন ঠিকাদারের প্রতিনিধি লেবার সর্দারা। ভাবতে অবাক লাগে ভেড়ি বাদ এর থেকে মাত্র ১৫ ফুট দূরে বড় বড় কেওড়া গাছ গেও গাছ কেটে মাটি কেটে ভেড়ি বাদ এর উপরে দিচ্ছে। আবারো যদি ইয়াসের মত ভয়ঙ্কর থাবা উপকূল অঞ্চলে এসে আঘাত হানে তাহলে সীমাহীন ক্ষতির আশংকা রয়েছে।

বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়ন এর ১৮ কিলোমিটার ভেড়িবাধ বর্তমানে বড় সংকট হয়ে দাড়িয়েছে। এখানে এসকে মিটার দিয়ে মাটি কেটে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ভেড়ি বাধ নির্মান এর কাজ চলছে। এলাকার সচেতন মহলের ধারণা এই এসকে মিটার দিয়ে মাটি কেটে যদি গাইড বাধ হয় তাহলে পূর্বের মত যদি পশ্চিম দুর্গাপাটির মত নদীভাঙ্গন হয় এক বছরে বাধা সম্ভব হবে না।  এসকে মিটার বাদ দিয়ে লেবার দিয়ে কাজ করার জন্য এলাকার জনগণ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছে অনুরোধ জানান। এসকে মিটার দিয়ে মাটি কাটলে রাস্তা ছাড়া কতদূর থেকে মাটি আনা যায় সেটা দেশের মানুষ  ভালো জানে। পানি উন্নয়ন বোর্ড উপকূলীয় অঞ্চলের মানুষের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে বলে ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করেছে। সবচেয়ে বড় অভিযোগ হচ্ছে কোন ঠিকাদারের আন্ডারে কাজ হচ্ছে সেটা কারো বোধগম্য নয়।

এব্যাপারে সাইডে যারা কাজ করায় তাদের কাছে জিজ্ঞাসা করলে ওনারা বলেন কাজ আমরা করাচ্ছি। তাই উপকূলবাসী জেলা প্রশাসক মহাদয়ের সুদৃষ্টি কামনা করছে পরিদর্শন পূর্বক পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাজ করার জন্য আমরা চাই ওয়ার্ক অর্ডার মাফিক কাজ হোক তা না হলে ইচ্ছা খুশিমতো পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাজ হলে সর্বনাশ হবে উপকূলবাসীর আর স্বার্থ নিয়ে কেটে পড়বে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান গুলো।

স্থানীয় সরকার ও জনগণের সমন্বয়ে ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের সমন্বয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাজ করতে হবে, কারণ যেখানে পানি না প্রবেশ করলে বাজেট আসেনা সেখানে স্থানীয় সরকার কে সঙ্গে নিয়ে কাজ করলে জবাবদিহিতার একটা জায়গা থাকবে।

এ বিষয়ে মুঠোফোনে বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান বাবু ভবতোষ মণ্ডলের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি অনেকবার নিষেধ করা সত্ত্বেও তারা কাজ চালিয়ে যাচ্ছে ,মানবতার জননী বাংলাদেশে সফল প্রধানমন্ত্রী দক্ষিণ অঞ্চলের মানুষের দুর্দশার কথা মাথায় রেখে যে বাজেট দিয়েছেন সত্যিই আমাদের ভাগ্য গড়ার মতো বাজেট দিয়েছেন ,আর এই টাকাগুলো তছনছ করে একদল অসাধু ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান। কাজের সাইডে না এসে আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ না করে কাজ করে চলেছেন। তবে আমার রিভার সাইট থেকে একটা গাছ কেটে মাটি দেওয়া যাবে না, আমি যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানাচ্ছি।

গাছেই পারে পানি উন্নয়ন বোর্ডের রাস্তা টিকিয়ে রাখতে আর সেই গাছ যদি কেটে রাস্তার গোড়া কেটে মাটি দেওয়া হয় অত্র এলাকায় একদিন পানির গহীনে চলে যাবে। এ বিষয়ে আমি অনেক চ্যানেলের মাধ্যমে আবেদন করেছি গাছ না কেটে এসকে মিটার দিয়ে মাটি না কেটে লেবারের সাহায্যে কাজ করার জন্য। অত্র অঞ্চলের মানুষের একটাই দাবি পানি উন্নয়ন বোর্ডের সাতক্ষীরা ইঞ্জিনিয়ার মহোদয় যেন দক্ষিণ অঞ্চলের মানুষের ভাগ্যের দিকে তাকিয়ে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মহোদয় যেন উপকূলবাসীর ভাগ্যের দিকে তাকিয়ে সরেজমিনে তদন্ত পূর্বক কাজ করিয়ে উপকূলবাসীর জানমালের নিরাপত্তা সাধন করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন : ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরো সংবাদ

আমাদের রূপসী ইউটিউব চ্যানেল

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: রবিউল ইসলাম তোতা

প্রধান কার্য্যালয় : রামনগর পূর্ব রূপসা, রূপসা, খুলনা

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি রাইট বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Hwowlljksf788wf-Iu