শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৫৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম

শ্যামনগরে প্রেগন্যান্ট কেয়ার কর্নারের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট টাইম বৃহস্পতিবার, ১২ আগস্ট, ২০২১
  • ৭০ জন সংবাদটি পড়েছেন
রাকিবুল হাসান শ‍্যামনগরঃ শ্যামনগরে প্রেগন্যান্ট কেয়ার কর্নারের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করছে অসুস্থ ফাতেমার বাবা আবাদচন্ডিপুর (চুনা) গ্রামের মোঃ রেজাউল ইসলাম গাঁতিদার (৪২)।
১০ আগস্ট মেয়ের অপচিকিৎসার কারণে আইনি সহযোগিতা চেয়ে এ অভিযোগ করেন।  অভিযোগে জানাযায়, গর্ভবতী মেয়ে ফতেমা খাতুন (২১) হঠাৎ অসুস্থ হলে তার সুচিকিৎসার জন্য শ্যামনগরে প্রেগন্যান্ট কেয়ার কর্নারে নিয়ে যায়। এসময় মেয়ের চিকিৎসার কথা বলে ডাঃ রেহানা পারভীন (৪৫) প্রেগন্যান্ট কেয়ার কর্নারে নিয়ে ঔষধ দ্বারা ভুল চিকিৎসা করে ও পেটের শিশু সন্তান নষ্ট করে ফেলে। এক পর্যায়ে ডাক্তার রেহানা পারভীন তার মেয়ের জরায়ু নাড়ি বের করে ফেলে। যে কারণে তার কন্যার পেটের শিশু সন্তানটি মারা যায়। বর্তমানে তার মেয়ে মৃত্যু শয্যা অবস্থায় খুলনা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসাধীন আছে। শরীরে প্রচুর রক্তক্ষরণ হচ্ছে। যার ফলে কন্যার শরীরে রক্ত দেওয়া লাগবে। অপারেশন করতে হবে। মেয়ের শারীরিক  অবস্থার অবনতি হতে দেখে ডা: রেহানা পারভীনকে চিকিৎসার জন্য বার বার অনুরোধ জানানো সত্বেও তিনি কোন গুরুত্ব দেননি। বরং তিনি ঘটনা অস্বীকার করেছেন। বিভিন্ন ধরনের ভয়-ভীতি হুমকি ধামকি দিচ্ছেন। ফাতেমা মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়তেছে। চিকিৎসার জন্য বহু টাকার প্রয়োজন।
পিতার আর্থিক অস্বচ্ছলতার কারনে মেয়ের উন্নত চিকিৎসা করানো সম্ভব হচ্ছে না। জীবন বাঁচাতে এবং ভুয়া ডাক্তারের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য দরিদ্র পিতা প্রশাসনের  হস্তক্ষেপ কামনা।
অভিযোগের বিষয় শ্যামনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গোলাম মোর্শেদ জানান, আমার জানা নেই তবে ডিউটি অফিসারের কাছে দিয়েছে কি না আমি দেখছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন : ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরো সংবাদ

আমাদের রূপসী ইউটিউব চ্যানেল

সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: রবিউল ইসলাম তোতা

প্রধান কার্য্যালয় : রামনগর পূর্ব রূপসা, রূপসা, খুলনা

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি রাইট বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Hwowlljksf788wf-Iu